মানুষ কেন অসুস্থ হয়?

আমরা মনে করি থাকি , মানুষ যখন পাপ করে তখনই তার পাপের আভিশাপে সে অসুস্থ হয় , আসলে ব্যাপারটি এমন নয় ।হাদীস এব্যাপারে কি বলে ফিকির করা উচিত ।

রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এরশাদ করেন , যে কোন মুসলমান অসুস্থ বা অন্য কোন কষ্ট ভােগ করবে , আল্লাহ তাআলা সে কষ্টের বিনিময়ে তার গােনাহসমূহ ঝেড়ে দিবেন , যেমনিভাবে শীতকালে গাছ তার পাতাকে ঝেড়ে ফেলে ।- মেশকাত শরীফ ।|

রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আরাে এরশাদ করেন , যখন কোন মুসলমান শারীরিক ভাবে অসুস্থ হয় , তখন একজন ফেরেশতাকে বলা হয় , সে সুস্থ অবস্থায় যে সব নেক কাজ করত , সেগুলি তার জন্য লিখতে থাক ।সুবহানাল্লাহ

এরূপ আল্লাহ তা’আলা যদি তাকে সুস্থতা দান করেন , তাহলে তাকে গােনাহ থেকে ধুয়ে মুছে পবিত্র করে দেন ।আর যদি তাকে মৃত্যু দিয়ে উঠিয়ে নেন , তাহলে তাকে ক্ষমা করে দেন এবং তার প্রতি দয়া করেন ।অর্থাৎ তার রূহ সহজে কবয করেন ।সুবহানাল্লাহ !|

একদা নবী কারীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর দরবারে একজন মাহিলা আগমণ করে বলল , হে আল্লাহর রাসুল !আমি মৃগী রােগে আক্রান্ত হয়ে উলঙ্গ হয়ে যাই ।অতএব আমার জন্য একটু দোয়া করুন যাতে আমি সুস্থ হয়ে যাই ।রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন , যদি তুমি চাও ধৈর্যধারণ কর , এর বদলায় আল্লাহ তােমাকে জান্নাত দান করবেন ।

সে মহিলা বলল , আমি ছবর করলাম , তবে আমি যেন উলঙ্গ না হয়ে যাই সে জন্য দোয়া করে দিন ।তখন রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তার জন্য দোয়া করে দিলেন।

রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম একবার উম্মে সায়েবার ঘরে গিয়ে জিজ্ঞাসা করলেন , তােমার কী হয়েছে ?সে বলল জ্বর হয়েছে , আল্লাহ জ্বরকে অমঙ্গল করুক ।

তখন রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন , তুমি জরকে গালি দিও না ।কেননা জর মানুষের গুনাহসমূহ এমনভাবে দূর করে নেয় , যেমনভাৱে কামর লােহা থেকে আগুন দ্বারা মরিচাকা দূর করে দেয় ।সুবহানাল্লাহ !

তিনি আরও বললেন , যখন কোন বান্দা অসুস্থ হয় , তখন সুস্থ অবস্থায় যেসব আমল সে করত , সে সব আমলের সমপরিমাণ সাওয়াব তাকে দেওয়া হয়ে থাকে ।সুবহানাল্লাহ !|

একদা নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর দরবারে জ্বর বিষয়ে আলােচনা করা হচ্ছিল , তখন এক ব্যক্তি জরকে গালি দিল , তখন নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন , তােমরা জ্বরকে গালি দিও না কেননা জ্বর গােনাহ সমূহকে এমনভাবে দূর করে দেয় , যেভাবে আগুন লােহার সমস্ত মরিচীকা দূর করে দেয় ।

রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন – আল্লাহ তা’আলা বলেন , জ্বর হচ্ছে আমার আগুন । দুনিয়াতে আমি তা আমার মুমিন বান্দার উপর পাঠিয়ে থাকি , যাতে করে কিয়ামতের দিন তা তার জন্য দোযখের আগুনের বদলা হয়ে যায় । অর্থাৎ দুনিয়াতে জ্বরে আক্রান্ত ব্যক্তিকে জাহান্নামের আগুনে পুড়ানাে হবে না । সুবহানাল্লাহ !

পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করে ছড়িয়ে দিন।

শেয়ার করুন:⬇⬇⬇

Leave a Reply

Your email address will not be published.